সেক্স ভিডিও দেখবেন? তাহলে কোথায় যাচ্ছেন? এদিকে আসুন|

নতুন বাংলাদেশি সেক্স ভিডিও দেখবেন? তাহলে কোথায় যাচ্ছেন এদিকে আসুন!

বর্তমান সময় তরুণদের কাছে সেক্স ভিডিও নামক আতঙ্ক মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়েছে। যখন আপনার প্রচন্ড অবসর কিংবা একা থাকার সময় আপনি হয়তো ব্লুফিল্মের জগতে হারিয়ে যান। 

আগেকার দিনে সেক্স ভিডিও দেখা অসম্ভব বললে ভুল হতো না, কিন্তু বর্তমানে প্রযুক্তির বিকাশে এই জিনিস গুলো যেন আমাদের হাতের মুঠোয়।

এখন যেকোন তরুণ মধ্যবয়স্ক কিংবা যেকোনো প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের হাতে স্মার্টফোন চলে আসার কারণে এগুলো কয়েক সেকেন্ডের ব্যাপার মাত্র। 

শুধু তা নয় এখনকার দিনে প্রেম ভালোবাসা নামক ছলনার বেড়াজালে আটকে গিয়ে আপনাকে হয়তো সেক্সের সম্মুখীন হতে হয়। 

কারণ আপনি যখন আপনার প্রিয়জনকে খুশি রাখতে চাইবেন, কিংবা সম্পর্কটাকে টিকিয়ে রাখতে চাইবেন তখন এছাড়া আর কোন উপায় আপনার কাছে থাকবে না। 

ফলশ্রুতিতে আপনার প্রেমিক কিংবা প্রেমিকা ভিডিওটি মোবাইলে কিংবা কম্পিউটারে ধারণ করে ছড়িয়ে দিবে সমস্ত ব্লুফিল্মের জগতে। 


সমস্ত নতুন সেক্স ভিডিও দেখবেন? তাহলে কোথায় যাচ্ছেন?এদিকে আসুন!

আর আপনার নিজের সেক্স ভিডিও আপনার বন্ধু-বান্ধব আত্মীয়-স্বজন দেখার ফলে আপনার কতটা মানহানি ঘটবে সেটা আপনি নিশ্চয়ই জানেন?

অনেকেই আছেন এই সমস্ত সমস্যার সম্মুখীন হওয়ার পর গলায় দড়ি দিয়ে আত্মহত্যা করেন। তাহলে কথা তো একটাই দাঁড়ায়, জীবন মানেই কি সেক্স?

অবশ্যই আপনি এরকম কিছু কখনোই করতে চাইবেন না যার কারণে আপনার মানহানি ঘটবে এবং পৃথিবী থেকে বিদায় নিতে হয়। 

সেক্স ভিডিও দেখার আগে অবশ্যই আপনাকে আজকের এই পোস্টটি মনোযোগ সহকারে পড়তে হবে, যদি আপনি বাঁচতে চান। 


 ধর্মের নিয়ম অনুসারে সেক্স ভিডিও দেখা


ধর্ম বলতে যে কোনো ধর্মেই সেক্স ভিডিও দেখা পুরোপুরি নিষিদ্ধ করা হয়েছে। আর ইসলাম ধর্মের কঠোরতা আরো বেশি। 

আপনি যদি আপনার পুরো জীবনে এই সমস্ত ভিডিও গুলো দেখে থাকেন তাহলে আপনাকে অবশ্যই জাহান্নামে নিক্ষিপ্ত করা হবে। 

শুধু তা নয় যখনই আপনাকে জাহান্নাম নামক অনন্তকালের কঠিন পথযাত্রী করা হবে, তখন আপনাকে এখানে অনন্তকালের জন্য কষ্ট উপভোগ করতে হবে। 

আর বিচার দিবসে যে বা যারা এরকম অশ্লীল সেক্স ভিডিও দেখেছিলেন তাদের চোখে জাহান্নামের খুন্তি ঢুকিয়ে পিছন দিয়ে বের করে দেয়া হবে। 

তাহলে আপনি নিশ্চয়ই অনুমান করতে পারছেন এর ভয়াবহতা কতটা হতে পারে, আর আপনি যদি এরকম সেক্স ভিডিও নামো নেশায় জড়িয়ে পড়েন তাহলে আপনাকেও ওই অবস্থার সম্মুখীন হতে হবে। 

শুধু তা নয় আপনি যদি পৃথিবীতে অতি বিলাসবহুল জীবনযাপন, তাহলে আপনাকে জাহান্নামের মধ্যে একবার চুবিয়ে আবার তোলা হবে। 

ফলে আপনি আপনার সারা জীবনের সমস্ত সুখ-স্বাচ্ছন্দ্যের কথা ভুলে যাবেন। আল্লাহ সুবহানাতায়ালা যদি আপনাকে জিজ্ঞেস করেন, তুমি কি দুনিয়াতে খুব আরামের জীবন যাপন করেছো?

আর আপনি প্রতিউত্তরে বলবেন "না"।  আসলে আপনি মিথ্যা কথা বলেন নি। জাহান্নামের 1 সেকেন্ডে রাজা ততটা ভয়ংকর যে আপনি ভুলে গেছেন দুনিয়ার সমস্ত সুখ বিলাসিতার কথা। 

তাহলে বুদ্ধিমানের কাজ কি এটা নয়? দুনিয়ার সমস্ত সুখ-স্বাচ্ছন্দ্যকে বিসর্জন দিয়ে জান্নাত কে কিনে নেওয়া। বুদ্ধিমান হলে এই কথাটি অবশ্যই আপনাকে ভাবাবে। 


 আপনার স্বাস্থ্যের জন্য সেক্স ভিডিও ভূমিকা


আপনি যখনই ব্লুফিল্মের জগতে পুরোপুরি হারিয়ে যাবেন, তখন আপনি ড্রাগ এডিকশন এর কবলে যারা আকৃষ্ট হয়েছে তাদের মত হয়ে যাবেন। 

আপনি এতটাই আকৃষ্ট হয়ে যাবেন যে এই জগত থেকে আপনার বেরিয়ে আসাটা অনেক কষ্টসাধ্য হয়ে যাবে। এগুলো আপনার নেশায় পরিণত হবে। 

বিজ্ঞানের গবেষণায় দেখা গেছে যে যে বা যারা এ সমস্ত সেক্স ভিডিও নামক নেশায় একবার আসক্ত হয়ে গেছে, তারা ড্রাগস অ্যাডিকশন এর মত নেশাগ্রস্ত হয়ে গেছে। 


সমস্ত নতুন সেক্স ভিডিও দেখবেন? তাহলে কোথায় যাচ্ছেন?এদিকে আসুন!

কারণ আপনি যখন এই ভিডিওগুলো একবার দেখবেন, তখনি আপনার ভিডিওগুলো কে বারবার দেখার ইচ্ছা করবে। 

ফলশ্রুতিতে আপনি আপনার নিজের সাথে অনেক জুলুম-অত্যাচার করতে পারেন, জড়িয়ে পড়তে পারেন হস্তমৈথুন নামক এক অন্ধকার জগতে। 

আর আপনি যখন খুব বেশি হারে হস্তমৈথুন করবেন তখনই এটা আপনার শরীরের পক্ষে এবং মানসিকতার ক্ষেত্রে বিরাট ক্ষতির কারণ হয়ে দাঁড়াবে। 

কারণ বয়সন্ধিকালে আমাদের দেহে টেস্টোস্টেরন হরমোন উৎপত্তি হয়। যার ফলে আমাদের দেহে পুরুষের সমস্ত ভাব-ভঙ্গি চলে আসে। 

আপনি যখন খুব বেশি হারে এই হরমোনটি কে আপনার দেহ থেকে বের করে দিবেন তখনই এগুলো আপনার জীবনের কাল হয়ে দাঁড়াবে। 

আর এগুলো প্রভাব ফেলবে আপনার সাংসারিক জীবনের উপর। দেখা যাবে অনেক সময় আপনি যৌন অক্ষমতা ভুগবেন, ফলে আপনার সঙ্গিনী আপনাকে ছেড়ে চলে যাবে।

আর আপনি হয়তো এটা কখনোই খাইবেন না যে উপরে দেয়া যে কোন স্টেপ আপনার জীবনের মধ্যে এসে ছাপ ফেলুক। কারণ আপনি একটি শান্তিময় জীবন উপভোগ করতে চান। 

আর এগুলো নেশা যে কারো মধ্যেই আসতে পারে, আপনি কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ গ্রহণের মাধ্যমে সেক্স ভিডিও থেকে বের হয়ে আসতে পারবেন। 

▪ সৃষ্টিকর্তাকে স্মরণ করুন
▪ নিজেকে নিয়ে ভাবুন
▪ ব্যস্ত থাকুন সবসময়
▪ এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন


সৃষ্টিকর্তাকে নিয়মিত স্মরণ করুন


সেক্স ভিডিও নামক অন্ধকার জগত থেকে আপনি যদি পুরোপুরি নিজেকে সরিয়ে আনতে চান তাহলে এর চেয়ে বড় প্রসেস আর কিছুই হতে পারে না। 

যখনই আপনার মধ্যে এরকম কোন ইচ্ছা বা কামনা জাগ্রত হও তখনই আপনি যদি পরক্ষনেই এটা ভেবে নিন যে সৃষ্টিকর্তা আমাকে দেখছেন। তাহলেই ভেবে নেবেন আপনি এটা থেকে মুক্ত হয়ে গেছেন। 

আসলে এটাই চিরন্তন সত্য, আপনি হয়তো অন্ধকার কোন কক্ষে রুম বন্ধ করে সকলের চোখ ফাঁকি দিয়ে এরকম সেক্স ভিডিও দেখতে পারেন, কিন্তু আপনি কি আল্লাহর চোখ ফাঁকি দিতে পেরেছেন?

অবশ্যই না! অন্য সবার চোখ ফাঁকি দিতে পারলেও আপনি আল্লাহর নজর থেকে কখনো বাঁচতে পারবেন না। তিনি সার্বক্ষণিক তোমাকে দেখছেন। 

আর তারপরেও আপনি যদি এই জগতের অধিবাসী হয়ে যান তাহলে আপনার জন্য জাহান্নামের সুসংবাদ। 


 নিজেকে নিয়ে সবসময় ভাবো


আপনি যখনই নিজেকে নিয়ে ভাবা শুরু করবেন তখনই এটা থেকে দূরে আসতে পারবেন। ভাবনাগুলো এরকম হবে, আমি আগে কেমন ছিলাম আর এখন কেমন হয়ে গেলাম?

আপনি হয়তো একটা বিষয় অবশ্যই লক্ষ্য করেছেন যে যখনই আপনি যেকোন নেশায় আকৃষ্ট হন তখনই আশেপাশে সব জিনিসগুলোকে ঠিক এরকমই লাগে। 

যেমন আপনি যদি কোন বিজনেস ম্যান হন,তাহলে আশেপাশে থাকা প্রত্যেকটি জিনিসকে নিয়ে আপনার যে ভাবনাটি আসবে তা হলো বিজনেস করার ভাবনা।


সমস্ত নতুন সেক্স ভিডিও দেখবেন? তাহলে কোথায় যাচ্ছেন?এদিকে আসুন!

ঠিক একই রকম ভাবে কবি তার আশেপাশে সমস্ত জিনিস গুলোর মধ্যে কবিত্ব ভাবনা ফুটিয়ে তুলতে চান। 

যেমন আপনি যদি সেক্স ভিডিও নামক কালো জগতে প্রবেশ করেন, তাহলে আপনার আশেপাশে যে সমস্ত কিছু দেখবেন এগুলোর মধ্যে আপনি ওই জিনিসগুলোকে চিন্তাধারায় রাখবেন।

ফলে আপনার নিজের অজান্তেই হয়তো আপনার মধ্যে একটি ভাবনা চলে আসবে, দিন দিন এতটা খারাপ হয়ে যাচ্ছি আমি?

আপনি নিশ্চয়ই এটাও তখন ভেবে পাবেন যে কোন কারণে এগুলো হচ্ছে। আর আপনি যদি পূর্বের অবস্থায় ফিরে যেতে চান তাহলে তো অবশ্যই এগুলোকে আপনি বাদ দিয়ে দিবেন। 


 সব সময় ব্যস্ত থাকার চেষ্টা করুন


যে বা যারা এই সমস্ত অশ্লীল ভিডিও নিয়ে সারাক্ষণ চিন্তাধারায় থাকে তাদের মধ্যে বেশ অংশজুড়ে আছে বেকার নাগরিক। 

আপনি যখনই একদম একা থাকবেন এবং কোন কাজকর্ম থাকবে না তখনই শয়তানের প্ররোচনায় আপনি সেক্স ভিডিও নামক ভয়ংকর জগতে প্রবেশ করবেন। 

আর তখন থেকেই শুরু হয়ে যাবে আপনার জীবনকে ধ্বংস করার লীলাক্ষেত্র। ফলে অচিরেই ঝরে পড়তে পারে আপনার যৌবন। 

তাই কখনো যদি আপনার এগুলো সম্পর্কে কোন টান এসে যায়, তাহলে নিমিষেই আপনি নিজেকে ব্যস্ত করে ফেলুন। এই টপিক বাদ দিয়ে অন্য কোন টপিকে নিজেকে জড়িয়ে নিন। 


  এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন


আপনি যেকোনো কিছুই বাদ দেয়ার চেষ্টা করেন না কেন সেই জিনিস গুলো আপনি তখনি আপনার জীবন থেকে মুছে ফেলতে চাইবেন যখন আপনি এগুলোকে এড়িয়ে চলবেন। 

আর এরকম যখন আপনি সেক্স ভিডিও নামক নেশা থেকে বেরিয়ে আসতে চাইবেন তখনই আপনাকে এর খারাপ দিকগুলো জেনে এগুলো এড়িয়ে চলতে হবে। 

যখনই আপনার এগুলো দেখার ইচ্ছা হবে তখনই আপনি নিজেকে সামাল দেয়ার চেষ্টা করুন। অন্য কোন কাজে নিজেকে ব্যস্ত করে ফেলুন তাহলেই আপনি এগুলো থেকে বের হয়ে আসতে পারবেন। 

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন