অকার্যকর হয়ে যাওয়া গুগল একাউন্ট ডিলিট করবেন কিভাবে?


অকার্যকর হয়ে যাওয়া গুগল একাউন্ট ডিলিট করবেন কিভাবে?

বর্তমান সময়ে একটি গুগল অ্যাকাউন্ট আপনার বিভিন্ন রকমের উপকারে আসতে পারে। গুগল একাউন্ট ছাড়া আপনার ইন্টারনেটের জগতে বিচরণ করা দুঃসাধ্য ব্যাপার।

কেন আমি আবার এই কথাটি বললাম যে গুগল একাউন্ট ছাড়া আপনি অনলাইনে বিচরণ করতে পারবেন না?

কারণ অনলাইনে জগতে এরকম অনেক ধরনের সেবাদানকারী ওয়েবসাইট আছে যেগুলো অ্যাক্সেস নিতে হলে আপনাকে আপনার গুগল একাউন্ট দ্বারা সাইন আপ করতে হয়।

আপনি যতক্ষণ পর্যন্ত ওয়েবসাইটে সাইনআপ না করছেন ততক্ষণ পর্যন্ত এই ওয়েবসাইট থেকে আপনি কোনরকমে সুযোগ-সুবিধা ভোগ করতে পারেন না।

তবে অনেক সময় দেখা যায় আমরা আমাদের গুগল অ্যাকাউন্ট নিয়ে শঙ্কিত অবস্থায় পড়ে যাই, এবং অবস্থা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য গুগল একাউন্ট ডিলিট করার জন্য উঠে পড়ে লেগে যাই।

কিভাবে ডিলিট করবেন আপনার গুগল অ্যাকাউন্ট? যখন এটি অকার্যকর হয়ে পড়বে।

গুগল একাউন্ট ডিলিট করার জন্য আপনাকে অবশ্যই আমার প্রদত্ত নিয়মগুলো একদম শেষ অব্দি দেখতে হবে, তাহলে আপনি সফল হবে গুগল অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে পারবেন।

এক্ষেত্রে প্রথমে আপনাকে আপনার জিমেইল একাউন্ট সিলেক্ট করতে হবে, আর এটা সিলেক্ট করতে হলে আপনাকে অবশ্যই জিমেইল এর অফিশিয়াল অ্যাপসে আপনার গুগল একাউন্ট লগইন করা থাকতে হবে।

আর যখন আপনি জিমেইল অ্যাকাউন্টে প্রবেশ করবেন তখন বামপাশে দেয়া 3 ডট ক্লিক করতে হবে, তাহলে আপনি এখানে সেটিং অপশন পেয়ে যাবেন।

আর সেটিং অপশনে ক্লিক করার পরে আপনার ফোনে যদি খুব বেশি সংখ্যক গুগল অ্যাকাউন্ট লগ ইন করা থাকে তাহলে এখান থেকে একটি গুগোল অ্যাকাউন্ট সিলেক্ট করার অপশন পেয়ে যাবেন।

অকার্যকর হয়ে যাওয়া গুগল একাউন্ট ডিলিট করবেন কিভাবে?


সেটিং অপশনে পৌঁছাতে হলে যখনই আপনি আপনার জিমেইল অ্যাকাউন্ট সিলেক্ট করবেন তখন একটি নতুন পেজ এ প্রবেশ করবেন।

এক্ষেত্রে আপনাকে সবচেয়ে উপরের একটি অপশন সিলেক্ট করতে হবে।  আর সেটা হলো 'Manage Your Google account '

অকার্যকর হয়ে যাওয়া গুগল একাউন্ট ডিলিট করবেন কিভাবে?


এবং তারপরে আপনি যেখান থেকে আপনার গুগোল অ্যাকাউন্ট ডিলিট করতে পারবেন সেই অবস্থানে পৌঁছে দেয়া হবে।

এখান থেকে আপনাকে Data and personalization অপশনটিতে ক্লিক করার পর নিচে থেকে Delete service or your account অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে।

অকার্যকর হয়ে যাওয়া গুগল একাউন্ট ডিলিট করবেন কিভাবে?


এরপর যথাক্রমে আপনাকে Delete your Google account অপশনটিতে ক্লিক করার পর আপনার জিমেইল একাউন্টে পাসওয়ার্ড দিয়ে তা ডিলিট করার মুডে পাঠিয়ে দিতে হবে।

অকার্যকর হয়ে যাওয়া গুগল একাউন্ট ডিলিট করবেন কিভাবে?

এবং তারপরে আপনাকে ইলেকশন উঠে যখন পরিচয় দেয়া হবে তখন পেইজটিকে একটু নিচের দিকে নেয়ার পর আপনাকে দুইটি অপশন সিলেক্ট করে তারপর Delete Account এরপর ক্লিক করে দিলেই আপনার গুগোল অ্যাকাউন্ট ডিলিট হয়ে যাবে।

অকার্যকর হয়ে যাওয়া গুগল একাউন্ট ডিলিট করবেন কিভাবে?


আর এভাবেই আপনি চাইলে খুব সহজেই আপনার গুগল একাউন্ট ডিলিট করতে পারবেন।

পাঁচটি জনপ্রিয় লাইভ নেট টিভি সফটওয়্যার ডাউনলোড করুন|

পাঁচটি জনপ্রিয় লাইভ নেট টিভি সফটওয়্যার ডাউনলোড করুন|

লোডশেডিং কিংবা অন্য কোনো জটিলতার কারণে আমরা হয়তো প্রায় সময় টিভির পর্দার সামনে দাঁড়াতে পারি না।

ফলশ্রুতিতে টিভিতে চলমান অনেক গুরুত্বপূর্ণ ইন্টারটেইনমেন্ট আমরা মিস করে থাকি। তবে এজন্য আমরা মোটেও প্রস্তুত থাকি না যে কোনো ইন্টারটেইনমেন্টের মিস করবো।

কারণ আপনি যদি লাইভ ইন্টারটেইনমেন্ট শো দেখে থাকেন তাহলে কিন্তু পরবর্তীতে সেটি দেখার সুযোগ কখনোই পাবেন না। এগুলো একবারই প্রচার হয়ে থাকে।

আর পরবর্তিতে ঐ একই ধরনের ভিডিও যদি ওই চ্যানেলে আবার প্রচার করা হয় তাহলে তা খুব বেশি হলে কয়েক মিনিটেই শেষ করে দেয়া হয়।

তবে এই কয়েক মিনিটের মধ্যে আপনি এর মর্মার্থ উপভোগ করতে পারেন না, কারণ এর ফলাফল সম্পর্কে আপনি আগেই অবগত হয়ে যান।

তবে ওই সময়টাতেই যদি, যে সময়ে টিভিতে এন্টারটেইনমেন্ট লাইভ চলে আপনার এন্ড্রয়েড ফোন হাতে থাকে তাহলে কিন্তু আপনি এটি আপনার এন্ড্রয়েড ফোনের সাহায্যে উপভোগ করতে পারেন।

যার ফলে আপনি কখনোই বঞ্চিত হবেন না বর্তমানে টিভিতে চলমান যেকোনো ধরনের লাইভ ভিডিও দেখার থেকে।

আপনি যদি পূর্বে থেকে আপনার ফোনে লাইভ নেট টিভি সফটওয়্যার ডাউনলোড করে রেখে দেন তাহলে এই সাহায্যে আপনি খুব সহজেই যে কোন টিভিতে চলমান ইন্টারেস্টিং ইন্টারটেইনমেন্ট উপভোগ করতে পারবেন।

আর আপনি যদি এরকম লাইভ নেট টিভি সফটওয়্যার ডাউনলোড করতে চান তাহলে আজকের এই পোস্টটি শুধুমাত্র আপনার জন্য।

এই সমস্ত সফটওয়্যার গুলোর সাহায্যে আপনি চাইলে যেকোন ধরনের চ্যানেল ফ্রিতে উপভোগ করতে পারবেন। এই ফ্রি এর ব্যাপার আসলে কেন বলা হয়েছে?

কারণ আপনি গুগল প্লে স্টোর থেকে এরকম কোন অ্যাপস ডাউনলোড করলে যে অ্যাপসের দ্বারা আপনি লাইভ নেট টিভি দেখতে চান, এগুলো ফ্রিতে আপনি কখনো ব্যবহার করতে পারেন না।

এক্ষেত্রে আপনাকে অবশ্যই একটি অ্যাকাউন্ট খুলতে হয় এবং তারপর আপনাকে প্রতিমাসে কিছু হারে টাকা পরিশোধ করতে হয়।

যা আমরা কখনোই চাইনা, আমরা চাই আমাদের লোডশেডিংয়ের মুহূর্তে কিংবা অন্য কোনো জটিলতার মুহূর্তে ফ্রিতে লাইভ টিভি উপভোগ করব কোন রকমের টাকা খরচ করা ছাড়াই।

তাহলে আর দেরি না করে এখনি নিচের দেয়া জনপ্রিয় তিনটি লাইভ নেট টিভি সফটওয়্যার ডাউনলোড করে উপভোগ করুন লাইভ নেট টিভি।


লাইভ নেট টিভি

আপনি চাইলে উপরের অ্যাপটির সাহায্যে যেকোনো ধরনের টিভি শো, স্পোর্টস সহ যেকোনো ধরনের সুযোগ সুবিধা ভোগ করতে পারবেন।

এবং এখানে দেয়া প্রত্যেকটি চ্যানেলে এইচডি কোয়ালিটি তে ভিডিও দেখাবে, ফলে আপনাকে কখনোই ভিডিও কোয়ালিটি নিয়ে চিন্তা-ভাবনা করতে হবে না।

সবচেয়ে মজার ব্যাপার হলো এটা যে আপনি চাইলে উপরের অ্যাপসটিতে প্রত্যেকটি চ্যানেল ফ্রিতে উপভোগ করতে পারবেন।

জাগোবিডি

এটাও আরেকটি জনপ্রিয় লাইভ টিভি নেট সফটওয়্যার, যাতে আপনি বাংলাদেশের প্রত্যেকটি টিভি চ্যানেল উপভোগ করতে পারবেন।

শুধু উপরে দেয়া দুইটি অ্যাপসের সাহায্যে আপনি লাইভ টিভি দেখতে পারবেন তা কিন্তু, আপনি চাইলে নিচের দেয়া আরো কয়েকটি অ্যাপস ব্যবহার করতে পারেন ভাল ইউজার এক্সপেরিয়েন্স এর জন্য।

বায়স্কোপ

বঙ্গোবিডি


বাংলা নিউজ


তাহলে আর দেরি কেন এখনই উপরের দেয়া প্রত্যেকটি অ্যাপস ডাউনলোড করে রেখে দিন আপনার ফোনের মধ্যে।

আর যখনই কোন সমস্যার সম্মুখীন হবেন যার দ্বারা আপনি টিভির সামনে দাঁড়াতে পারবেন না তখনই এই লাইভ নেট টিভি সফটওয়্যার গুলোকে ব্যবহার করতে পারবেন।

কোনরকমের কোডিং এর ধারণা ছাড়া কিভাবে Android App বানানো যায়?

কোনরকমের কোডিং এর ধারণা ছাড়া কিভাবে Android App বানানো যায়?

আপনি হয়তো গুগল প্লে স্টোরে, অথবা অন্য কোন অ্যাপ স্টরে সার্চ করার মাধ্যমে আপনার পছন্দের অ্যাপসটি খুব সহজেই হাতের নাগালে পেয়ে যান।

আপনি কি কখনো ভেবে দেখেছেন এই ওয়েবসাইটগুলো তৈরিকৃত অ্যাপস আপনার কাজকে কতটা সহজ করে দিয়েছে?

উদাহরণস্বরূপ আপনি যে ফেসবুক ব্যবহার করেন, এ ফেসবুক ব্যবহারের তথ্যটা কি স্বস্তি বোধ করেন যতটা স্বস্তি বোধ করেন ফেসবুক অ্যাপ্স এর মাধ্যমে এটা ব্যবহার করতে?

নিশ্চয়ই আপনি হতো ক্রমে ক্রমে যেকোন ব্রাউজারে প্রবেশ করার পরে ওই ব্রাউজারের এড্রেসবারে m.facebook.com এই ওয়েব এড্রেসটি লিখতে বিরক্তবোধ করবেন।

আর এই সমস্ত বিরক্তির অবসান ঘটানোর জন্য আপনি হয়তো আপনার কাছ থেকে আরো বেশি সহজ করার লক্ষ্যে ফেইসবুক এর অফিশিয়াল অ্যাপ সমূহ ডাউনলোড করেন।

যার ফলে প্রতিনিয়ত ও আপনাকে কোন ব্রাউজার এ প্রবেশ করে এড্রেস টাইপ করার মাধ্যমে আপনাকে ফেসবুক ব্যবহার করতে হয় না।

এবার ঠিক একই বিষয় আপনার ক্ষেত্রে ভাবুন, উদাহরণস্বরূপ আপনার একটি ওয়েবসাইট আছে এবং এখানে সাবস্ক্রাইবার প্রতিনিয়ত আপনার সাইটে ভিজিট করে।

আর ভিজিট করার ক্ষেত্রে হয়তো প্রতিদিন তাদেরকে আপনার ওয়েব সাইটের ওয়েব এড্রেস টাইপ করা সহ আরো নানান ভোগান্তি সম্মুখীন হয় আপনার সাইটে প্রবেশ করতে হয়।

এতে করে দেখা যায় অনেকেই আছে যারা আপনার সাইটে আগে প্রবেশ করত তারা বিরক্তি বোধ করে আপনার সাইট থেকে লিভ  নিয়ে নেয়, ফলশ্রুতিতে আপনি ভিজিটর হারিয়ে খেলার ঝুঁকিতে থাকেন।

এবার একটি বিষয় ভেবে দেখুন পূর্বের না আপনি যেভাবে ফেসবুকের ওয়েব এড্রেস ব্যবহার করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ না করার কারণে ফেসবুকের অ্যাপসটি ব্যবহার করেছিলেন।  যার কারণে আপনি ফেসবুকের সাথে সংযুক্ত ছিলেন।

এবার আপনি যদি আপনার ভিজিটর এর জন্য সবচেয়ে ভালো কিছু বয়ে আনতে চান তাহলে অবশ্যই আপনার ওয়েবসাইটের জন্য একটি অ্যাপস তৈরি করতে পারেন।

তবে এই অ্যাপসটি শুধুমাত্র যে যারা ওয়েবসাইট তৈরী করেছেন তারা তৈরি করার ক্ষমতা রাখেন তা কিন্তু নয়, যে কেউ তাদের বিজনেস প্রোডাক্ট কিংবা অন্য কোন সেবার জন্য একটি অ্যাপস তৈরি করতে পারে।

আর যখনই আপনি একটি এপস তৈরি করে ফেলবেন তখন ওই অ্যাপস এর মধ্যে এড দেখানোর মাধ্যমে আপনি আয় করতে পারবেন।

এবার আপনি হয়তো এটা ভাবছেন যে কিভাবে ফ্রিতে তৈরি করবেন যখন আপনি কোডিং সম্পর্কে বিন্দুমাত্র ধারণা রাখেন না।

বিষয়টা এরকম যে আমাদের অনেকেরই এইচটিএমএল এবং সিএসএস কোড গুলো সম্পর্কে খুব বেশি একটি ধারণা না থাকার কারণে আমরা অ্যাপস তৈরি করার ধারে কাছেই যেতে চাই না, মনে করি এটা খুবই কষ্টসাধ্য।

তবে আপনি চাইলে আজকের এই পোষ্টটির মাধ্যমে খুব সহজেই একটি android app তৈরি করতে পারবেন যখন আপনার কোন রকমের কোডিং ধারনা থাকবে না।

আজকের এই পোস্টটিতে আমি কয়েকটি ওয়েবসাইটের লিঙ্ক দিয়ে দিব যে ওয়েবসাইট গুলোর সাহায্যে আপনি খুব সহজে আপনার ওয়েবসাইট উপযোগী কিংবা অন্য কোন কাজের জন্য অ্যাপস তৈরি করতে পারবেন।

এক্ষেত্রে প্রথমে আপনি চাইলে আপনার পছন্দমত যেকোন ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে আপনার অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপসটি তৈরি করতে পারবেন।

ফ্রিতে অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ তৈরি

এক্ষেত্রে আমি রিকমেন্ড করব উপরে দেয়া ওয়েবসাইটটি এর মাধ্যমে আপনি যাতে আপনার অ্যাপসটি তৈরি করেন। কারণ এই ওয়েবসাইটের মাধ্যমে আপনি চাইলে যেকোনো ধরনের অ্যাপস তৈরি করতে পারবেন।

এক্ষেত্রে প্রথমে আপনি যখন করবেন তখন দেখতে পারবেন 'CREATE Now for free' নামক একটি অপশন, আপনাকে এই অপশনের উপর ক্লিক করতে হবে।
কোনরকমের কোডিং এর ধারণা ছাড়া কিভাবে Android App বানানো যায়?

এবার আপনাকে আপনার পছন্দের ক্যাটাগরি অনুযায়ী অ্যাপস তৈরি করার একটি ফ্লোচার্ট দেখানো হবে। এখান থেকে আপনি আপনার পছন্দের ক্যাটাগরি সাথে অ্যাপ তৈরি করতে পারেন।

আমি যেহেতু আমার ওয়েবসাইটের জন্য একটি অ্যাপস তৈরি করতে চাই তার জন্য প্রথম আইকন অর্থাৎ "Website" অপশনটি সিলেক্ট করলাম।

আপনি চাইলে আপনার পছন্দমতো যেকোনো ধরনের অ্যাপস তৈরি করতে পারবেন। এতে আপনি যে রিলেটেড অ্যাপস তৈরি করতে চান ওই অপশনটি সিলেক্ট করুন।


কোনরকমের কোডিং এর ধারণা ছাড়া কিভাবে Android App বানানো যায়?


এবার আমি যেহেতু আমার ওয়েবসাইটের জন্য অ্যাপস তৈরি করতে চাই এক্ষেত্রে ওই ওয়েবসাইটের লিঙ্ক দিতে হবে, যে ওয়েবসাইটের জন্য আমি অ্যাপস তৈরি করতে চাই।

এক্ষেত্রে ওয়েবসাইটের লিংক দেয়ার পরে একটু নিচের দিকে পেইজটিকে স্ক্রল করলে আপনি আপনার পছন্দমত অ্যাপসটিতে কাস্টমাইজ করতে পারবেন।

তাছাড়া আপনি আপনার অ্যাপসটি কিভাবে কাস্টমাইজ করছেন এবং এটি দেখতে আসলে কেমন দেখাচ্ছে তাও আপনি পাশে দেয়া একটি ডেমো ট্যাবে দেখতে পারবেন।

এবার আপনাকে পেজটিকে একটু নিচের দিকে স্ক্রল করতে হবে, এরপর আপনাকে Next  এ ক্লিক করতে হবে।


কোনরকমের কোডিং এর ধারণা ছাড়া কিভাবে Android App বানানো যায়?

এবার আপনাকে সম্পূর্ণ একটি নতুন পেজ নিয়ে আসা হবে, এবং আপনাকে এক্ষেত্রে আপনার তৈরিকৃত ওই এপ্সটির জন্য একটি নাম নির্বাচন করতে হবে।

আপনার তৈরিকৃত অ্যাপসের জন্য একটি নাম নির্বাচন করার পরে আবারো আপনাকে next এ ক্লিক করতে হবে।

এবার আপনাকে ওই অ্যাপটির জন্য একটি ভালো ডেসক্রিপশন দিতে হবে, যেখানে আপনিও অ্যাপসটির এবাউট এ যে কোন কিছু লিখতে পারেন।

যার মানে হল ওই ব্যবহারকারীরা অ্যাপসটির মধ্যে প্রবেশ করার পর কোন কোন বিষয়ে জানতে পারবে অথবা এটি তৈরি করার মূল উদ্দেশ্য কি।
কোনরকমের কোডিং এর ধারণা ছাড়া কিভাবে Android App বানানো যায়?

এবার আপনাকে অ্যাপস টির জন্য একটি আইকন সিলেক্ট করতে হবে, যা দেখে যে কেউ মুগ্ধ হয়। আপনি চাইলে আপনার ওয়েবসাইটের জন্য যখন অ্যাপস তৈরি করবেন তখন ওয়েবসাইট এ ব্যবহৃত লোগো ব্যবহার করতে পারবেন।

অথবা আপনি চাইলে এখানে দেয়া যে লোগোটি আছে এটি ব্যবহার করে আপনার অ্যাপসটি কে সেভ করে নিতে পারেন।

আপনি যদি আপনার নিজস্ব কোন রোগে ব্যবহার করতে চান তাহলে এখানে দেয়া দুইটি অপশন এর মধ্যে Custom logo এই অপশনটিতে ক্লিক করার পর তারপর আপনার লোগোটিকে আপলোড করতে হবে।

এরপর আবারো আপনাকে এই ট্যাবের কাজগুলো শেষ করার পর Next অপশনটিতে ক্লিক করতে হবে।

এরপর যখন সমস্ত কাজগুলো শেষ হয়ে যাবে তখন আপনি একটি অপশন খুজে পাবেন সেটি হল Create' এই অপশনটিতে যখন ক্লিক করবেন তখন আপনাকে আপনার গুগোল একাউন্ট এর মাধ্যমে লগইন করতে হবে।

অথবা আপনি চাইলে আপনার ফেসবুক আইডির মাধ্যমে তাদের সাইটে লগইন করে আপনার অ্যাপসটি ডাউনলোড করে নিতে পারেন।
কোনরকমের কোডিং এর ধারণা ছাড়া কিভাবে Android App বানানো যায়?

লগইন সম্পন্ন করা হয়ে গেলে তারা আপনাকে আপনার একাউন্টে ড্যাশবোর্ডে নিয়ে যাবে। এবং এখানে থেকে অনেকগুলো অপশন থেকে আপনাকে Download নামক অপশনটির উপর ক্লিক করতে হবে।

এর পরে আপনি আপনার ডাউনলোড লিঙ্ক পেয়ে যাবেন এবং এখানে ক্লিক করার মাধ্যমে পূর্বে তৈরিকৃত আপনার অ্যাপটিকে ডাউনলোড করতে পারবেন।


কোনরকমের কোডিং এর ধারণা ছাড়া কিভাবে Android App বানানো যায়?

ডাউনলোড করা যখন সম্পূর্ণ হয়ে যাবে তখন আপনি আপনার ওয়েবসাইটে ইন্সটল দিয়ে এটিকে চেক করে নিতে পারেন।

এবং তারপরে সবকিছু ঠিক থাকলে আপনি চাইলে এটিকে গুগল প্লে স্টোরে কিংবা অন্য কোন প্ল্যাটফর্ম এর মাধ্যমে ছড়িয়ে দিতে পারেন।

অ্যান্ড্রয়েড এবং পিসির জন্য আপনিও কি গেম ডাউনলোড করতে চান?

অ্যান্ড্রয়েড এবং পিসির জন্য আপনিও কি গেম ডাউনলোড করতে চান?

বর্তমান সময়ের স্মার্টফোন ব্যবহারকারী কিন্তু গেম খেলতে ভালবাসে না এরকম মানুষ আপনি খুবই কম খুঁজে পাবেন।

আমাদের অবসর সময়ে কিংবা যেকোনো গুরুত্বপূর্ণ মুহূর্তে সোসিয়াল গণমাধ্যম ব্যবহার করার পাশাপাশি আমরা গেম খেলতে পছন্দ করি।

তবে এক্ষেত্রে আপনি যে কোন গেম কে ইনজয় করতে হলে অবশ্যই আপনাকে একটি ইউনিক গেমস খেলতে হবে।

কিছু ভালো ইউনিক গেমস খেলতে হলে আপনাকে অবশ্যই একটি ভালো প্লাটফর্ম খুঁজতে হবে, এখান থেকে আপনি সমস্ত ইউনিক গেম গুলো ডাউনলোড করতে পারবেন।

আর আপনি যদি গেম প্রেমি হয় এবং গেম ডাউনলোড করতে চান আপনার এন্ড্রয়েড ফোন কিংবা পিসির জন্য তাহলে এই পোষ্ট টি আপনার জন্য।

আজকের এই পোস্টটিতে আমি আলোচনা করব- গেম ডাউনলোড করতে চাই? এরকম প্রশ্নের সমাধান নিয়ে।

প্রথমে আলোচনা করা যাক বর্তমান সময়ে কিছু আলোচিত গেম সম্পর্কে। যে গেম গুলো সম্পর্কে আলোচনা করা ছাড়া আমি ডাউনলোড লিঙ্ক দিয়ে দেবো, যাতে করে আপনি ডাউনলোড করে আপনার ফোনে খেলতে পারবেন।

এক্ষেত্রে আপনি নিচে থেকে বর্তমান সময়ের কিছু বহুল আলোচিত গেম সম্পর্কে ধারণা পেয়ে যেতে পারেন।

Pubg Mobile
Free Fire
PES
Dream League Soccer

আপনি যদি একজন গেম প্রেমী হন তাহলে অবশ্যই উপরে উল্লেখিত গেম গুলো আপনার ফোনে ইন্সটল দিয়ে দিবেন।

এবার এই সম্পর্কে আলোচনা করা যাক কোথায় আপনি আপনার এনড্রয়েড ফোন এবং পিসিতে জন্য খুব ভালো ভালো গেম খুঁজে পাবেন।

এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য গেম-

আপনি আপনার এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য খুব ইউনিক এবং মানুষের গেম, এজন্য আপনাকে প্রথমে নিচের দেয়া যে কয়টা গেম ডাউনলোডিং সাইট আছে সবগুলোতে ভিজিট করতে হবে।

Apkpure Games Download
Apkmirror
Takegame
Appsapk

আর উপরের দেয়া ওয়েবসাইট গুলোর সাহায্যে আপনি চাইলে আপনার এন্ড্রয়েড ফোনের জন্য সর্বকালের সর্বসেরা থ্রিডি এনিমেশন যুক্ত গেম ডাউনলোড করতে পারবেন।

পিসির জন্য গেম ডাউনলোড-

মোবাইল ফোনের জন্য গেম ডাউনলোড করা হয়ে গেলে এবার আমাদের প্রত্যেকেরই আশা হলো, কিভাবে আমাদের পিসি কিংবা ল্যাপটপের জন্য গেম ডাউনলোড করা যায়?

আপনি চাইলে আপনার পিসির জন্য ঠিক একই রকম ভাবে কিছু ওয়েবসাইট ব্যবহার করে ফ্রি-তে যে কোন গেম ডাউনলোড করতে পারবেন।

আর আমি নিচে পিসি গেম ডাউনলোড করার জন্য সর্বকালের সর্বসেরা কয়েকটি ওয়েবসাইটের লিঙ্ক দিয়ে দেবো, এখান থেকে আপনি ফ্রিতে গেম ডাউনলোড করতে পারবেন।

Steampowered
GOG
G2a
Origin
Ea
Oceanofgames


আর উপরে যে সমস্ত লিংক দেয়া আছে ওই লিংকগুলো সাহায্যে আপনি আপনার পিসির জন্য থ্রিডি গেম ডাউনলোড করতে পারবেন।

ফ্রী ফায়ার|গ্যারেনা ফ্রী ফায়ার গেমটি ডাউনলোড করে খেলুন যেকোন ফোনে|

ফ্রী ফায়ার|গ্যারেনা ফ্রী ফায়ার গেমটি ডাউনলোড করে খেলুন যেকোন ফোনে|

বর্তমান সময়ে গেমপ্রেমী মানুষ আপনি প্রত্যেক বয়সের মধ্যেই দেখতে পাবেন।যে কেউ তাদের অবসর সময়ে ফেসবুকে কানেক্টেড থাকা ছাড়াও গেম নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পরে।

তবে কোথায় আপনি খুজে পাবেন একটি মনোমুগ্ধকর গেম? সত্য বলতে কি আপনি চাইলেই গুগল প্লে স্টোর কিংবা  যেকোন যায়গা থেকে গেইম ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

তবে আমাদের এন্ড্রয়েড ফোনের স্টোরেজ বা রেম কম থাকার কারনে একটি ভালো একশন গেইম খেলতে পারি নাহ।যার ফলে। 

বর্তমানে একটি গেম বহুল জনপ্রিয়তা লাভ করেছে, আর সেটা হলো 'পাবজি' যা সকলের ফোনে খেলা সম্ভব হয় নাহ।

তবে এই গেমটির বিকল্প আরেকটি গেম এখন পাবলিশ হয়েছে প্লে স্টোরে, সেটা হলো ' গ্যারেনা ফ্রি ফায়ার' যা যেকোন ধরনের এন্ড্রয়েড ফোনে খেলা যাচ্ছে।

তবে আনন্দের ব্যাপার হলো যে এই গেমটি পুরোটা পাবজি গেমের মতো, অসাধারণ গেমপ্লে এর কারনে গেমটি বর্তমানে অনেক জনপ্রিয়তা অর্জন করেছে।

তাই আমাদের সকলেরই নজর এটার দিকে।তবে অনেকেই হয়ত এই গেমটি সম্পর্কে খুব ভালো একটা ধারনা নেই,বা গেমটি ডাউনলোড করতে পারছেন নাহ।

ফ্রি ফায়ার একটি মোবাইল গেম এবং এই গেমটি ২০১৭ সালে সিঙ্গাপুরের অধিনে পাবলিশ করা হয় গুগল প্লে স্টোরে।

গেমটি গুগল প্লে স্টোর এবং আইফোন এর আপেল স্টোর এ আপনি চাইলেই পেয়ে যেতে পারেন। তবে পোস্টের নিচের আমি ফ্রি ফায়ার ডাউনলোড করার অনেকগুলো লিঙ্ক দিয়ে দিবো। 

যে লিঙ্কগুলো থেকে আপনি সাচ্ছন্দ্যে আপনার পছন্দের গেমটি ডাউনলোড করে নিতে পারবেন।



 গেমটির বিবরন


সাপোর্টেড- এন্ড্রয়েড, এবং IOS,
মিনিমাম ভার্সন-Android 4.0.3+,
র্যাম- ৫১২, তবে বেশি হলে ভালো হয়,
গেমটির বর্তমান ভার্সন-1.43.0


আপনি চাইলে প্রথমেই ডাইরেক্ট গুগল প্লে স্টোর এর লিঙ্ক ব্যবহার করে ডাউনলোড করে নিতে পারেন।

Download From Google Play Store 

ফোনের প্লে স্টোরে কোন সমস্যা থাকলে আপনি চাইলে নিচের দেয়া লিঙ্কগুলো থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারেন


 গ্যারেনা ফ্রী ফায়ার ডাইরেক্ট ডাউনলোড লিঙ্ক   




Download From ApkPure

Download From Uptodown

Download From ApkMirror

Download From Malavida

Download From Apkaward

আপনি যদি এই লিঙ্কগুলো থেকে ডাউনলোড করেন তাহলে আপনাকে কয়েকটি স্টেপ ভালোভাবে ফলো করতে হবে। 


~প্রথমে আপনাকে নিচের দেয়া লিঙ্ক থেকে এপসটি ডাউনলোড করে নিতে হবে-

DOWNLOAD


অ্যাপসটি ডাউনলোড করা হয়ে গেলে আপনার ডাউনলোড কৃত ফাইলটি ওপেন করুন, তাহলে আপনি এখান থেকে একটি অপশন খুজে পাবেন আর সেটা হল-Extract'


ফ্রী ফায়ার|গ্যারেনা ফ্রী ফায়ার গেমটি ডাউনলোড করে খেলুন যেকোন ফোনে|


অপশনটিতে যখনই আপনি ক্লিক করবেন তখনই অ্যাপসটি আপনাকে রিকমেন্ড করবে যে কোন একটি ফোল্ডার চয়েজ করার জন্য যে ফোল্ডারটিতে আপনি গেইমে ডাটা ফাইলটি এক্সট্রাক্ট করতে চান।

আপনাকে এর জন্য অবশ্যই আপনার অ্যান্ড্রয়েড ফোনের স্টোরেজ থেকে Android- Obb- paste file`  যদি অ্যান্ড্রয়েড নামক ফোল্ডারে Obb ফোল্ডারটি না থাকে তাহলে এই একই নামক একটি ফোল্ডার তৈরি করে নিন।


ফ্রী ফায়ার|গ্যারেনা ফ্রী ফায়ার গেমটি ডাউনলোড করে খেলুন যেকোন ফোনে|

এবং ফাইলটি এখানে এক্সট্রাক্ট করুন, তাহলে আপনি এখানে গারেনা ফ্রী ফায়ার এর ডাটা ফাইল এবং অ্যাপস ফাইল টি দেখতে পারবেন, অ্যাপসটি এখান থেকে ইন্সটল করুন।

এবং তারপর ইনজয় করুন আপনার পছন্দের ফ্রী ফায়ার গেমটি।



 গ্যারেনা ফ্রী ফায়ার পিসির জন্য ডাউনলোড লিঙ্ক   



DOWNLOAD

DOWNLOAD

DOWNLOAD



উপরের ফাইলগুলো পিসিতে ডাউনলোড করার পর সেগুলো যথাযথ ফোল্ডারে এক্সট্রাক্ট করুন।

তাহলে উপভোগ করতে পারবেন আপনার পছন্দের ফ্রী ফায়ার গেম টি আপনার পিসিতে। কোন ধরনের জটিলতা ছাড়াই।